তরুণীর বাবাকে এক বিশেষ দাঁত দিতে পারলেই হবে বিয়ে | SANGBAD BHAVAN  

তরুণীর বাবাকে এক বিশেষ দাঁত দিতে পারলেই হবে বিয়ে

কোনও নারীকে দেখে পছন্দ হতে পারে আবার প্রেমের সম্পর্কও থাকতে পারে। তবে বিয়ে করতে হলে জীবনসঙ্গিনী করতে চাওয়া নারীর পিতা মাতার কাছে বিয়ের আবেদন নিয়ে হাজির হতে হয় পুরুষকে। এমনটা দেখতে পাওয়া যায় প্রাচ্য থেকে পাশ্চাত্য অনেক সমাজে।

এর পর মেয়ের বাবা মা পরখ করে দেখেন যে পুরুষ তাঁর মেয়েকে বিয়ে করতে ইচ্ছুক তাঁর সেই সামর্থ্য আছে কিনা। তাঁদের মেয়েকে সুখে রাখতে পারবে কিনা।

আরও পড়ুন,
*৫টি গুপ্ত নিয়ম মনে রাখলে শীতেও ঝলমল করবে ত্বক
* জাঁকিয়ে শীত পড়বে বঙ্গে, উত্তরে হাওয়ায় পারদপতন

তবে এমন একটি জায়গা রয়েছে যেখানে একজন পুরুষ যদি কোনো তরুণীকে বিবাহ করতে চান তাহলে তাঁকে নিজের সামর্থ্য প্রদর্শন করতে একটি বিশেষ দাঁত এনে উপহার দিতে হয় তরুণীর বাবাকে। এমনটা তিনি করতে পারলে তরুণীর বাবা বিয়েতে নিজের সম্মতি দেন। এটাই প্রচলিত প্রথা এখানকার।

ফিজিতে বহু বছর ধরে এই প্রাচীন প্রথা চলে আসছে। এখানে স্পার্ম তিমি নামে এক বিশেষ প্রজাতির তিমির একটি দাঁত উপহার হিসাবে আনতে হয় যুবককে।

বিয়ে
বিয়ে

এরপর ওই দাঁত তুলে দিতে হয় তিনি যে তরুণীকে জীবনসঙ্গিনী করতে চান তাঁর বাবার হাতে। এই দাঁত হাতে পেলে কোনও বাবা তাঁর মেয়ে দিতে নারাজ থাকে না ফিজিতে।

স্থানীয় ভাষায় এই দাঁতকে বলা হয় তাবুয়া। এই রীতি প্রাচীন প্রথা ফিজির। তবে এখন তিমি মাছের শিকার নিষিদ্ধ হয়ে গেছে। ক্রমশ কমে যাচ্ছে এই স্পার্ম তিমির সংখ্যা। ফলেই তার দাঁত পাওয়া ইদানিং খুব মুশকিল হয়ে গিয়েছে। একটি দাঁত যদিও বা কেউ পান তো তার দাম থাকে আকাশছোঁয়া। ভবিষ্যতে কি হবে সেটাই দেখার।

আরও পড়ুন,
* বছরের শেষে আইনি জটিলতায় কৃতি শ্যানন, কিন্তু কেন?
*পুত্র সন্তান জন্ম দিল সমলিঙ্গের মহিলা দিম্পতি, দু’জনেই গর্ভে ধারণ ভ্রূণ করেছিলেন, কিন্তু কি ভাবে?

Note: প্রতিবেদনে উল্লেখিত তথ্য বিভিন্ন নিউজ পোর্টাল / অনলাইনে পাওয়া তথ্যের উপর ভিত্তি করে লেখা। খবরের সত্যতা যাচাই করেনা Sangbad Bhavan। ভিডিও খবর পেতে সাবস্ক্রাইব করুন সংবাদ ভবন YouTube পেজ। ফলো করুন Google News, Instragram, Facebook পেজ।