রামমন্দির নিয়ে এই ভুয়ো বার্তা ছড়াচ্ছে হোয়াটসঅ্যাপে, সতর্ক হয়ে যান রমভক্তরা | SANGBAD BHAVAN  

রামমন্দির নিয়ে এই ভুয়ো বার্তা ছড়াচ্ছে হোয়াটসঅ্যাপে, সতর্ক হয়ে যান রমভক্তরা

রামমন্দির নিয়ে ভুয়ো বার্তা ছড়াচ্ছে হোয়াটসঅ্যাপে। আগামী ২২শে জানুয়ারি রামমন্দিরে ‘প্রাণ প্রতিষ্ঠা’ করা হবে রামলালার। মন্দিরের উদ্বোধন করবেন স্বয়ং প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। প্রস্তুতি তুঙ্গে, রামমন্দির উদ্বোধন উপলক্ষে অযোধ্যায় ১৪ই জানুয়ারি থেকে ২২ জানুয়ারি পর্যন্ত পালিত হবে আমৃত মহৎসব।

আর সেই সুযোগ কাজে লাগিয়েই নেটিজেনদের জন্য ফাঁদ পাতছে সাইবার অবরাধীরা। রামমন্দির উদ্বোবধনী অনুষ্ঠানে ভিআইপি পাস বিক্রির নামে আম জনতার থেকে টাকা হাতিয়ে নিচ্ছে সাইবার অবরাধীরা। 

আরও পড়ুন,
*মেটার কাজ ছেড়ে খামার সামলাচ্ছেন মার্ক জ়াকারবার্গ! গোসেবার পেছনের করণ জানলে অবাক যাবেন

রামমন্দির নিয়ে সাধন মানুষের কৌতূহলকে কাজে লাগিয়েও ফাঁদ পাতছে সাইবার অবরাধীরা। হোয়াটসঅ্যাপে একটি লিঙ্ক সহ বার্তা পাঠিয়ে দাবি করা হচ্ছে – রামমন্দির সংক্রান্ত যাবতীয় তথ্য জানতে ক্লিক করুন এই লিঙ্কে। এরপর সেই লিঙ্কে লিঙ্কে করলেই বলা হচ্ছে একটি এপিকে ফাইল ডাউনলোড করতে। আর ফোন বা কম্পিউটারে সেই অ্যাপ ডাউনলোড করলেই হ্যাক হচ্ছে।

সূত্র মারফত খবর, আপাতত জানা গিয়েছে এই ভুয়ো এপিকে ফাইলের নাম – ‘রাম জন্মভূমি গৃহসম্পর্ক অভিযান’। এই অ্যাপটি ফোনে ইনস্টল করলেই রামমন্দির উদ্বোধনের ভিআইপি পাস মিলবে এমনটা দাবি করা হচ্ছে বার্তায়। এখানেই সমাপ্ত নয়, এই ভুয়ো বার্তার নীচে লেখা রয়েছে- ‘জয় শ্রী রাম’। রামভক্তদের বোকা বানিয়ে তাঁদের কষ্টার্জিত অর্থ আত্মস্যাৎ করছে সাইবার অপরাধীরা। এই সব অ্যাপের অপব্যবহার চলছে সাধারণ মানুষের ব্যক্তিগত তথ্য থেকে শুরু কোরে ব্যাঙ্কিং সংক্রান্ত তথ্য হাতিয়ে নিতে।

উল্লেখযোগ্য বিষয় হল, আগামী ২২শে জানুয়ারির রামমন্দির উদ্বোধনের অনুষ্ঠানে শুধুমাত্র তাঁরাই অংশ গ্রহণ করতে পারবেন, যাঁদেরকে মন্দির ট্রাস্টের থেকে সরাসরি আমন্ত্রণ জানানো হয়েছে। আমন্ত্রিত অতিথি না হলে রামমন্দির উদ্বোধনের অনুষ্ঠানের দিন অযোধ্যার রামমন্দিরে প্রবেশ অসম্ভব। গোটা দেশবাসীর কাছে স্বয়ং প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী আহ্বান করেছেন, যাতে ২২শে জানুয়ারি রামমন্দির উদ্বোধনের দিন তাঁরা রামমন্দিরে না যান। তাঁরা যেন উদ্বোধনের পর যেন।

অযোধ্যায় রামমন্দির উদ্বোধন বলে কথা, যে কারণে বহু আগে থেকেই অযোধ্যার হোটেল বুকিং করেছিলেন বহু মানুষ। এক্ষেত্রে উত্তরপ্রদেশের মুখ্যমন্ত্রী যোগী আদিত্যনাথ হোটেল মালিকদেরকে নির্দেশ দিয়েছেন, এই ধরনের অগ্রিম বুকিং বাতিল করে ট্রাস্টের আমন্ত্রিত অতিথিদের অগ্রাধিকার দিতে।

সূত্র মারফত খবর, ২২শে জানুয়ারি শুধুমাত্র তাঁরাই অযোধ্যায় প্রবেশ করতে পারবেন যাঁদের কাছে ট্রাস্টের তরফে বৈধ আমন্ত্রণপত্র রয়েছে। এছাড়া অযোধ্যায় সেদিন সরকারি আধিকারিকরা প্রবেশ করতে পারবেন।

আরও পড়ুন,
*প্লাস্টিকের বোতলে জল পান করেন? অজান্তে শরীরে ঢুকছে ‘বিষ’

Note: প্রতিবেদনে উল্লেখিত তথ্য বিভিন্ন নিউজ পোর্টাল / অনলাইনে পাওয়া তথ্যের উপর ভিত্তি করে লেখা। খবরের সত্যতা যাচাই করেনা Sangbad Bhavan। ভিডিও খবর পেতে সাবস্ক্রাইব করুন সংবাদ ভবন YouTube পেজ। ফলো করুন Google News, Instragram, Facebook পেজ।