Garam Masala Short Film deyor boudi romancingShort Film: দেওরকে বেডরুমে নিয়ে রোমান্সে মত্ত বৌমা! পরকীয়া ভরা এই শট ফিল্ম ঘরের দরজা বন্ধকরে দেখুন

Short Film: স্মার্টফোনে মানুষ বর্তমানে দৈনন্দিন সময়ের বেশিরভাগটাই কাটায়। আর তাই দেখা যায় বাসে ট্রেনে কিংবা কোনো অবসর সময়ে মানুষ মোবাইলমুখী। মোবাইলের প্রতি মানুষ এখন অনেকটাই নির্ভরশীল হয়ে পড়েছে। মোবাইল গোটা বিশ্বকে হাতের মুঠোয় এনে দিয়েছে। আর তাই আমরা সোশ্যাল মিডিয়া থেকে গোটা দেশ ও বিশ্বের খবর খুব সহজেই পাই। বর্তমানে সোশ্যাল মিডিয়ার পাশাপাশি আরেকটি জনপ্রিয় মাধ্যম হলো ওটিটি প্ল্যাটফর্ম।

ওটিটি প্ল্যাটফর্মে মুক্তি পায় একের পর এক ওয়েব সিরিজ(Web Series)। আর এই ওয়েব সিরিজের প্রতি মানুষের আকর্ষণ দিনের পর দিন বেড়েই চলেছে। তাই ওয়েব সিরিজের দুনিয়া এখন জমজমাট। ওয়েব সিরিজকে মানুষ এখন অনেকটাই ভালোবেসে ফেলেছে। তাই অবসর সময়ে ওয়েব সিরিজের প্রতি আকৃষ্ট হন সকলে। ওয়েব সিরিজ(Web Series) বিভিন্ন স্বাদের হয়৷ কোনোটিতে দেখা যায় আমাদের সাধারণ জীবনের গল্প আবার কোনোটিতে অ্যাকশন থ্রীলার।

তবে সবথেকে জনপ্রিয় হলো যৌন দৃশ্য দেখানো ওয়েব সিরিজ। এই ওয়েব সিরিজগুলি মানুষ দেখতে আকৃষ্ট হয়। সম্প্রতি গরম মাসালা-তে মুক্তি পেয়েছে একটি নতুন ক্রাইম স্টোরি। এই শর্ট ফিল্মের মূল কাহিনিতে রয়েছেন একজন চরিত্র ভ্রষ্টা গৃহবধূ। তিনি হলেন শোভা। শোভার স্বামী কাজের সূত্রের বাড়ির বাইটে লক্ষ্মৌতে থাকে। তিনি সারাদিন কাজ করে যা টাকা পান তাতে কোনোমতে চলে যায়।

কিন্তু এতে শোভার শখ আহ্লাদ পূরণ হয় না৷ এদিকে বাড়ির বাইরে থাকে স্বামী। শোভার শারীরিক চাহিদা মেটে না৷ এরপর ধীরে ধীরে শোভা খিটখিটে হয়ে যায়। এরপর সে শারীরিক চাহিদা মেটাতে দেওর নবীনের সাথে পরকীয়ায় জড়িয়ে পড়ে। প্রথমে দেখা যায় নবীন বৌদি শোভার ঘরে আসত। এদিকে শোভার স্বামী বাড়িতে না থাকায় শোভার সঙ্গে অবৈধ সম্পর্ক গড়ে তোলে।

এদিকে শোভার শাশুড়ীর সবকিছুতে তীক্ষ্ণ দৃষ্টি। সে সবকিছু বুঝতে পারে। তিনি তার ছেলেকে বলেন স্ত্রীকে নিয়ে যেতে এবং যেখানে সে থাকে সেখানে একটি ঘর নিতে। এদিকে বৌমা ও নবীনের এমন কুকর্ম দেখে ফেলে শ্বশুর। এরপর চরম সিদ্ধান্ত নেন তিনি৷ শেষ পর্যন্ত কী হলো জানতে গেলে দেখতে হবে শর্ট ফিল্ম(Short Film)টি।

Note: ফলো করুন Google News, Instragram, Facebook পেজ।
এইভাবে তেজপাতা পোড়ালে দুশ্চিন্তা কেটে যাবে 5 Best Night Creams ৪ মাসের শিশু ২৪০ কোটির মালিক