Divorce: সংসার ভাঙছে দীর্ঘ ১১ বছরের, ডিভোর্সের কথা নিজেই জানালেন এষা দেওল | SANGBAD BHAVAN  

Divorce: সংসার ভাঙছে দীর্ঘ ১১ বছরের, ডিভোর্সের কথা নিজেই জানালেন এষা দেওল

Divorce: দীর্ঘ ১১ বছর সংসার করার পর বিচ্ছেদের পথে হাঁটতে চলেছেন অভিনেত্রী এশা দেওল এবং তার স্বামী ব্যবসায়ী ভরত তখতানি। সম্প্রতি এই বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন তারা। চলতি বছরের শুরুর দিকে তাদের বিবাহবিচ্ছেদ নিয়ে নানা জল্পনা শোনা যাচ্ছিলো। এবার একটি বিবৃতির মাধ্যমে সেটা স্বীকার করে নিয়েছেন এই জুটি।

এই বিষয়ে একটি বিবৃতিতে তারা জানিয়েছেন, ‘আমরা পারস্পরিক এবং সৌহার্দ্যপূর্ণভাবেই বিচ্ছেদের সিদ্ধান্ত নিয়েছি। আমাদের জীবনের এই পর্যায়ে যাতে দুই সন্তান ভালো থাকে সে বিষয়টি আমাদের কাছে সবথেকে গুরুত্বপূর্ণ। আশা করছি আমাদের এই গোপনীয়তাকে সম্মান জানানো হবে।’

আরও পড়ুন,
*Death: ফের যাদবপুর বিশ্ববিদ্যালয়ের এক অধ্যাপকের রহস্যমৃত্যু!ঝুলন্ত দেহ উদ্ধার সুমন স্যারের!
*‘নিষ্ঠুর ক্যানসার’ কেড়ে নিয়েছে ‘ডান হাত’, মাত্র দুমাসেই ‘বাঁ হাতে’ লেখা অভ্যাস করে মাধ্যমিক পরীক্ষা দিচ্ছে নদিয়ার পড়ুয়া

এশা একবার জানিয়েছিলেন তাদের প্রথম দেখা হয়েছিল একটি আন্তঃকলেজ প্রতিযোগিতায়। ১০ বছর পরে তাদের মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে আরও একবার দেখা হয়। সেখান থেকে তাদের প্রেমের সূত্রপাত। এরপর ২০১২ সালে বিবাহবন্ধনে আবদ্ধ হন তারা। ২০১৭ সালে জন্ম দেন প্রথম সন্তান রাধ্যার।

২০১৯ সালে দ্বিতীয় কন্যা সন্তান মিরায়ার জন্ম দেন অভিনেত্রী। গত বছরেও স্বামী ভরতের সাথে বিবাহবার্ষিকী পালন করেছেন এশা। যার বেশ কিছু ছবি সোশ্যাল মিডিয়ায় পোস্ট করে তিনি লিখেছিলেন, ‘অনন্তকালের জন্য। ১১ বছর কাটানোর কৃতজ্ঞতা।’

তবে যখন হেমা মালিনীর জন্মদিন পালন করা হয় তখন সেখানে উপস্থিত ছিলেন না ভরত। সেখান থেকেই প্রশ্ন ওঠে তাহলে কি ধীরে ধীরে দূরত্ব বেড়েছে ভরত এবং এশার? এমনকি মাঝে স্বামীর সাথে ছবি পোস্ট করাও বন্ধ করে দেন তিনি। এরপর শুধুমাত্র মেয়েদের সাথেই সময় কাটাতে দেখা যায় তাকে।

আরও পড়ুন,
*Aindrila Sharma: স্মৃতিটুকুই সম্বল! প্রয়াত ঐন্দ্রিলার জন্মদিনে বিশেষ আয়োজন পরিবারের
*আসরে নেই পাত্রর খোঁজ! সরকারি প্রকল্পের টাকা হাতাতে কী শয়ে শয়ে ভুয়ো গণবিবাহ যোগীরাজ্যে!

Note: প্রতিবেদনে উল্লেখিত তথ্য বিভিন্ন নিউজ পোর্টাল / অনলাইনে পাওয়া তথ্যের উপর ভিত্তি করে লেখা। খবরের সত্যতা যাচাই করেনা Sangbad Bhavan। ভিডিও খবর পেতে সাবস্ক্রাইব করুন সংবাদ ভবন YouTube পেজ। ফলো করুন Google News, Instragram, Facebook পেজ।