Death: ফের যাদবপুর বিশ্ববিদ্যালয়ের এক অধ্যাপকের রহস্যমৃত্যু!ঝুলন্ত দেহ উদ্ধার সুমন স্যারের! | SANGBAD BHAVAN  

Death: ফের যাদবপুর বিশ্ববিদ্যালয়ের এক অধ্যাপকের রহস্যমৃত্যু!ঝুলন্ত দেহ উদ্ধার সুমন স্যারের!

Death: ফের যাদবপুর বিশ্ববিদ্যালয়ের এক অধ্যাপকের রহস্যমৃত্যু! মুর্শিদাবাদের লালগোলার বাসিন্দা অধ্যাপক সুমন নিহার। সম্প্রতি নিজের বাড়ি থেকে তার ঝুলন্ত দেহ উদ্ধার করা হয়েছে। ৩৭ বছর বয়সী এই অধ্যাপকের মৃত্যুতে দানা বেঁধেছে রহস্য।

জানা গিয়েছে, গত রবিবার লালগোলার বাড়িতে ফিরেছিলেন তিনি। তখন পরিবারের সদস্যরা কোনোরকম কিছু অস্বাভাবিক বুঝতে পারেননি। মঙ্গলবার দুপুরে তার কলকাতায় ফেরার ট্রেন ছিল। তবে তার আগেই ঘটে যায় এই মর্মান্তিক ঘটনা। মনে করা হচ্ছে আত্মহত্যা করেছেন তিনি।

আরও পড়ুন,
*‘নিষ্ঠুর ক্যানসার’ কেড়ে নিয়েছে ‘ডান হাত’, মাত্র দুমাসেই ‘বাঁ হাতে’ লেখা অভ্যাস করে মাধ্যমিক পরীক্ষা দিচ্ছে নদিয়ার পড়ুয়া
*চাপে ‘পতঞ্জলি’! রামদেবের পতঞ্জলির বিরুদ্ধে কড়া ব্যবস্থা নেওয়ার নির্দেশ দিয়েছে প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়

যাদবপুর বিশ্ববিদ্যালয়ে মেকানিক্যাল ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগে কর্মরত সুমন, কর্মসূত্রে কলকাতাতে থাকতেন। মাঝেমধ্যে ফিরতেন লালগোলার বাড়িতে। বাড়িতে তার বাবা এবং মা রয়েছেন। তবে কী কারণে তিনি এই ভয়ংকর পথ বেছে নিলেন তা এখনো জানা যায়নি।

প্রাথমিকভাবে মনে করা হচ্ছে হয়তো পারিবারিক কারণেই আত্মহত্যা করেছেন তিনি। একইসাথে এর পেছনে প্রেমঘটিত কিছু রয়েছে কিনা সেই বিষয়েও তদন্ত করা হচ্ছে। বিশ্ববিদ্যালয় সূত্র থেকে জানা গিয়েছে সাম্প্রতিক সময়ে তিনি বেশ মনমরা হয়ে থাকতেন।
 
এমনকি বেশ কিছুদিন তিনি বিশ্ববিদ্যালয়েও যাচ্ছিলেন না। তবে কী কারণে তিনি তার সফল কেরিয়ার ছেড়ে এই পথ বেছে নিলেন তা নিয়ে তদন্ত চালাচ্ছে পুলিশ। তার দেহ উদ্ধারের পর সেটি ময়নাতদন্তের জন্য পাঠানো হয়েছে। উল্লেখযোগ্য, ২০২২ সালে যাদবপুর বিশ্ববিদ্যালয়ের আরেক অধ্যাপক সামন্তক দাস আত্মহত্যা করেছিলেন।

আরও পড়ুন,
*Aindrila Sharma: স্মৃতিটুকুই সম্বল! প্রয়াত ঐন্দ্রিলার জন্মদিনে বিশেষ আয়োজন পরিবারের
*Sourav-Sana: ‘সেই যে গেল আর আসার নামই নেই…’! সানা সবচেয়ে ভয় পান বাবা সৌরভকে নাকি মা’কে? ফাঁস হল দাদাগিরিতে

Note: প্রতিবেদনে উল্লেখিত তথ্য বিভিন্ন নিউজ পোর্টাল / অনলাইনে পাওয়া তথ্যের উপর ভিত্তি করে লেখা। খবরের সত্যতা যাচাই করেনা Sangbad Bhavan। ভিডিও খবর পেতে সাবস্ক্রাইব করুন সংবাদ ভবন YouTube পেজ। ফলো করুন Google News, Instragram, Facebook পেজ।