অন্য পুরুষের সঙ্গে ঘনিষ্ঠ প্রাক্তন 'বিশ্বসুন্দরী' ঐশ্বর্য্য, প্রকাশ্যে ‘অপমান’ করেন জয়া বচ্চন! | SANGBAD BHAVAN  

অন্য পুরুষের সঙ্গে ঘনিষ্ঠ প্রাক্তন ‘বিশ্বসুন্দরী’ ঐশ্বর্য্য, প্রকাশ্যে ‘অপমান’ করেন জয়া বচ্চন!

বেশ কিছুদিন ধরেই সোশ্যাল মিডিয়ায় চর্চা চলছে ঐশ্বর্য্য এবং অভিষেকের বিচ্ছেদ নিয়ে। শোনা যাচ্ছে আরাধ্যাকে নিয়ে আলাদা থাকছেন প্রাক্তন ‘বিশ্বসুন্দরী’। আর এর নেপথ্যে নাকি রয়েছেন জয়া বচ্চন! কারণ, শাশুড়ির সাথে সম্পর্ক মোটেই ভালো নয় ঐশ্বর্য্যর। সেই জেরেই নিজেকে বচ্চন পরিবার থেকে দূরে সরিয়ে নিয়েছেন তিনি। তবে কী কারণে তাদের দু’জনের মধ্যে এতো তিক্ততা? আসুন জেনে নেওয়া যাক।

বেশ কয়েক বছর আগে মুক্তি পেয়েছে করণ জোহর পরিচালিত সিনেমা ‘অ্যায় দিল হ্যায় মুশকিল’। যেখানে একটি বিশেষ চরিত্রে অভিনয় করেছিলেন ঐশ্বর্য্য। সেখানেই একাধিক ঘনিষ্ঠ দৃশ্যতে অভিনয় করেছিলেন এই অভিনেত্রী। তবে অভিনেতা রনবীর কাপুরের সাথে এই ঘনিষ্ঠ দৃশ্য মোটেই ভালো চোখে দেখেননি জয়া।

আরও পড়ুন,
*‘প্রভু শ্রীরাম কে নাম’ অযোধ্যায় রজনীকান্ত, সফরসঙ্গী জামাই ধনুষ
*রামের প্রেমিকা! মাথায় ঘোমটা দিয়ে নারী’র ভঙ্গিমায় প্রভুর পুজো করেন ‘রাম রসিক’ সম্প্রদায়ের পুরুষেরা

বাড়ির বউ অন্য পুরুষের সাথে ঘনিষ্ঠ দৃশ্যে অভিনয় করায় বেজায় চটে গিয়েছিলেন তিনি। এমনকি মুখ খুলেছিলেন সংবাদ মাধ্যমের কাছেও। এই বিষয়ে তিনি বলেন, ‘পরিচালকেরা আগে শিল্প তৈরি করতেন, তবে এখন সবটাই ব্যবসা।

সভ্যতা হয়তো ভুলে গিয়েছে মানুষজন। খোলামেলা দৃশ্যই এখন স্মার্টনেসের পরিচয়। লজ্জা বলে কোনো বস্তুই নেই মানুষের মনে।’ নাম না নিলেও সকলে স্পষ্ট বুঝে গিয়েছেন তিনি বৌমাকে উদ্দেশ্য করেই এই ক্ষোভ উগড়ে দিয়েছিলেন।

পরবর্তীতে এই ঘটনা নিয়ে একাধিক জলঘোলা হয়েছে। তুমুল সমালোচনা হয়েছে নেটদুনিয়ায়। তবে জয়া এই কথা বললেও শ্বশুর অমিতাভ কিন্তু প্রশংসা করেছেন তার বৌমার। আসলে শাশুড়ি জয়ার সাথে সম্পর্ক তিক্ত হলেও শ্বশুরের সাথে বেশ ভালো সম্পর্ক রয়েছে এই অভিনেত্রীর।

আরও পড়ুন,
*রামকে অপমান করে রোষের মুখে অভিনেত্রী নয়নতারা, পাপ খণ্ডন ‘জয় শ্রী রাম’ লিখে
*‘প্রভু শ্রী রাম কে নাম’ বড় অনুদান অক্ষয়- হেমা মালিনীর, রাম লেখা ইট দিয়েছেন অনুমপ

Note: প্রতিবেদনে উল্লেখিত তথ্য বিভিন্ন নিউজ পোর্টাল / অনলাইনে পাওয়া তথ্যের উপর ভিত্তি করে লেখা। খবরের সত্যতা যাচাই করেনা Sangbad Bhavan। ভিডিও খবর পেতে সাবস্ক্রাইব করুন সংবাদ ভবন YouTube পেজ। ফলো করুন Google News, Instragram, Facebook পেজ।