'
রামের প্রেমিকা! মাথায় ঘোমটা দিয়ে নারী'র ভঙ্গিমায় প্রভুর পুজো করেন 'রাম রসিক' সম্প্রদায়ের পুরুষেরারামের প্রেমিকা! মাথায় ঘোমটা দিয়ে নারী'র ভঙ্গিমায় প্রভুর পুজো করেন 'রাম রসিক' সম্প্রদায়ের পুরুষেরা

শিবের সাথে যেমন পার্বতী, কৃষ্ণের সাথে রাধা তেমনি রামের সাথে ওতপ্রোতভাবে জড়িয়ে রয়েছেন এই সম্প্রদায়ের পুরুষেরা। ‘রাম রসিক’ সম্প্রদায়ের এই পুরুষেরা নিজেদের রামের প্রেমিকা হিসেবে দাবী করেন। এমনকি একজন নারী যেভাবে পুজো করেন সেভাবেই তারা রামের পুজোয় মেতে ওঠেন। সাথে মাথায় ঘোমটা নিতেও দেখা যায় তাদের। কোথায় থাকেন এই সম্প্রদায়?

তাদের বাসস্থান রাজস্থানে। কবি রামানন্দ তাদের প্রথম একত্রিত করেছিলেন। এরপর তার শিষ্য কৃষ্ণদাস রাজস্থানের জয়পুরের কাছে রামানন্দ সম্প্রদায়ের আশ্রম প্রতিষ্ঠা করেন। ধীরে ধীরে তাদের আরেক শিষ্য অগ্রদাস রাজস্থানের অন্যান্য স্থানে এই সম্প্রদায়কে ছড়িয়ে দেন। অযোধ্যায় যেখানে রামমন্দির তৈরি হয়েছে সেখানে রয়েছে কনক ভবন মন্দির।

আরও পড়ুন,
*রামরামপাড়ার সব পুরুষের নামেই ‘রাম’-এর ছোঁয়া, বাঁকুড়ার ‘রামময়’ গ্রাম সাজছে অযোধ্যা ধামের জন্য রাম
*বাড়িতে বসেই রামমন্দির উদ্বোধনের সাক্ষী হতে পারবেন, জেনে নিন পদ্ধতি

শোনা যায় রাম-সীতার বিবাহের পর সীতাকে এই ভবন দিয়েছিলেন কৈকেয়ী। বনবাসে যাওয়ার আগে সেখানেই বাস করতেন রাম-সীতা। এই কনক ভবনেই মর্যাদা পুরুষোত্তমের আরাধনায় মেতে ওঠেন ওই বিশেষ সম্প্রদায়। তাদের মতে রামের সাথে তাদের একটি বিশেষ সম্পর্ক রয়েছে।

যা জাগতিক সম্পর্কের থেকে অনেক আলাদা। তারা প্রেম এবং ভক্তি দিয়ে রামের আরাধনায় মেতে ওঠেন। আর পুজোর সময় তারা মনেপ্রাণে হয়ে ওঠেন মহিলা। এমনকি মাথায় ঘোমটা দিয়ে তাদের ভালোবাসার দেবতাকে ডাকেন।

শতাব্দীর পর শতাব্দী ধরে এই প্রথাই চলে আসছে রাম রসিক সম্প্রদায়ে। বর্তমানে এই সম্প্রদায়ের অনেক পুরুষকেই অযোধ্যার রামমন্দিরের সেই কনক ভবনে দেখা গিয়েছে। আসলে রামলালার প্রাণপ্রতিষ্ঠা উপলক্ষ্যে তারা হাজির হয়েছেন সেখানে।

আরও পড়ুন,
*‘প্রভু শ্রী রাম কে নাম’ বড় অনুদান অক্ষয়- হেমা মালিনীর, রাম লেখা ইট দিয়েছেন অনুমপ
*রামনামের ছোঁয়া! দেশের ৩৪৩টি স্টেশনকে আলোয় সাজায়ে তোলার জন্য বেছে নিল রেল

Note: প্রতিবেদনে উল্লেখিত তথ্য বিভিন্ন নিউজ পোর্টাল / অনলাইনে পাওয়া তথ্যের উপর ভিত্তি করে লেখা। খবরের সত্যতা যাচাই করেনা Sangbad Bhavan। ভিডিও খবর পেতে সাবস্ক্রাইব করুন সংবাদ ভবন YouTube পেজ। ফলো করুন Google News, Instragram, Facebook পেজ।