'
Ankita Bhattacharyya: 'ভারতীয়দের রুটিরুজি চলে বাংলাদেশকে মেরে!' সঙ্গীতশিল্পী অঙ্কিতা ভট্টাচার্যর এক মন্তব্য ঘিরে উত্তাল বাংলাদেশী নেটিজেন!Ankita Bhattacharyya: 'ভারতীয়দের রুটিরুজি চলে বাংলাদেশকে মেরে!' সঙ্গীতশিল্পী অঙ্কিতা ভট্টাচার্যর এক মন্তব্য ঘিরে উত্তাল বাংলাদেশী নেটিজেন!

Ankita Bhattacharyya: ভারতীয়দের রুটিরুজি চলে বাংলাদেশকে মেরে! সঙ্গীতশিল্পী অঙ্কিতা ভট্টাচার্যের এক মন্তব্যকে ঘিরে এমন কথাই বলছেন বাংলাদেশের বাসিন্দারা। হঠাৎ কী এমন হলো যে তাদের মুখে এই কথা শোনা গেলো? জেনে নিন। আসলে ভারত ও বাংলাদেশের দ্বন্দ্ব নতুন কোনো বিষয় নয়।

কোনো না কোনো কারণ নিয়ে তাদের মধ্যে বাকবিতণ্ডা লেগেই থাকে। এই যেমন অঙ্কিতার গান নিয়ে সম্প্রতি ঝগড়া শুরু হয়েছে তাদের মধ্যে। সঙ্গীতশিল্পী অঙ্কিতা ভট্টাচার্যকে কমবেশি সকলেই চেনেন। ইতিমধ্যেই বলিউড এবং টলিউডে গান গেয়ে জনপ্রিয়তা লাভ করেছেন তিনি।

আরও পড়ুন,
*ভাগ্যের নিষ্ঠুর পরিহাস! ‘শিক্ষিত বেকার ক্যাফে’-তেই বেঁচেথাকার লড়াই জারি স্বর্ণপদক জয়ী যুবকের
*Poonam Pandey: মাত্র ৩২ বছর বয়সে মৃত্যু! নগ্নতা, বিতর্কের ঝড়, ‘কলঙ্ক’ময় জীবন পুনম পাণ্ডের

তবে সম্প্রতি নিজের গাওয়া ‘কমলা নৃত্য করে’ গানটি নিয়ে ভীষণই ফ্যাসাদে পড়েছেন তিনি। কারণ, স্টেজে উঠে বলেন, ‘এই গানটি খুবই বিখ্যাত হয়েছে কারণ ঋতাভরী তাতে নেচেছেন এবং কাতার বিশ্বকাপেও এই গানটি বেজেছে।’ তবে গানটিকে নিজের বলে দাবি করতে চটে গিয়েছেন বাংলাদেশীরা।

তাদের অভিযোগ অঙ্কিতা কেন এই গানকে নিজের বলে দাবী করবেন? আসলে এই গানটি লিখেছেন বাংলাদেশের শাহ আব্দুল করিম। যদিও এই গানটি অনেকে গেয়েছেন তবে তারা সেটিকে নিজের বলে দাবী করেননি। যেহেতু অঙ্কিতা গানটিকে নিজের বলে দাবী করেছেন রেগে গিয়েছেন বাংলাদেশীরা।

তাদের মতে এই গান তারা ছোটো থেকে শুনেছেন, ওনার গান কবে থেকে হলো? আবার কেউ বলেছেন, ‘এই গান আমাদের অনুভূতির সাথে মিশে আছে। উনি কেন নিজের বলছেন?’ শুধু তাই নয় কেউ কেউ বলেছেন ভারতের মানুষেরা নিজের জিনিসে সন্তুষ্ট হয় না। ওদের রুটিরুজি চলে বাংলাদেশের মেরে।

আরও পড়ুন,
*শুধু সোনা, রুপো, হিরে নয় আরও কী কী দিয়ে রাম মন্দির গড়েছেন শিল্পীরা?
*টেস্টে ফেল, অ্যাডমিট কার্ড ‘নকল’ করে মাধ্যমিক পরীক্ষা দিতে হাজির পরীক্ষার্থী, হাতেনাতে পাকড়াও ভুয়ো ছাত্র

Note: প্রতিবেদনে উল্লেখিত তথ্য বিভিন্ন নিউজ পোর্টাল / অনলাইনে পাওয়া তথ্যের উপর ভিত্তি করে লেখা। খবরের সত্যতা যাচাই করেনা Sangbad Bhavan। ভিডিও খবর পেতে সাবস্ক্রাইব করুন সংবাদ ভবন YouTube পেজ। ফলো করুন Google News, Instragram, Facebook পেজ।