৭২ বার চেষ্টাও অন্তঃসত্ত্বা হয়নি স্ত্রী, প্রতিবেশী যুবকের বিরুদ্ধে মামলা ঠুকলেন স্বামী | SANGBAD BHAVAN  

৭২ বার চেষ্টাও অন্তঃসত্ত্বা হয়নি স্ত্রী, প্রতিবেশী যুবকের বিরুদ্ধে মামলা ঠুকলেন স্বামী

স্ত্রীকে অন্তঃসত্ত্বা করার দায়িত্ব দিয়েছিলেন প্রতিবেশী যুবককে কাঁধে। সেই দায়িত্ব পালনে ডাহা ফেল করেছেন ওই যুবক। তাই ওই যুবকের নামে মামলা করলেন স্বামী। জার্মানির বাসিন্দা ২৯ বছর বয়সী যুবক ডেমি়ট্রাস সুপলাসের তরফে এমন মামলা পেয়ে বিস্মিত পুলিশও।

ড্রেমিট্রাস কোনো দিন বাবা হতে পারবেন না, এ ক্থা তিনি বিয়ের পর জানতে পারেন। কিন্তু তাঁর স্ত্রী ট্রটে তাঁকে সন্তানের জন্য লাগাতার চাপ দিতেন। ট্রটে চেয়েছিলেন স্বাভাবিক প্রকৃতির নিয়মেই তাঁদের পুত্র সন্তান হোক। কিন্তু স্বামীর অক্ষমতার কথা জানতে পেরে মানসিক ভাবে ভেঙে পড়েন। ডেমিট্রাস কিছুই বুঝতে পারছিলেন না, তিনি কী করবেন। সারোগেসির মাধ্যমে সন্তান নিতে নারাজ ছিলেন ট্রটে। অগত্যা অন্য পরিকল্পনা করতে হয় ডেমিট্রাসকে।

আরও পড়ুন,
*প্রয়াত বাবা যেন পুত্র হয়ে কোলে ফেরে! প্রার্থনা করছেন সুদীপ্তা
*২টি জরায়ু, দু’টিতেই সন্তান, বিরল ঘটনায় কোন হেলদোল নেই হবু মায়ের

৩৪ বছর বয়সি মাউস। তিনি দুই সন্তানের বাবাও ওই দম্পতির বা়ড়ির পাশেই থাকেন। অন্য কোনও রাস্তা না পেয়ে ডমি়ট্রাস প্রতিবেশী যুবককে এই কাজের সম্পূর্ণ ভার দেন। ট্রটের গর্ভে সন্তান আসার পর মাউসকে বেশ মোটা অঙ্কের টাকা দেওয়ার কথাও ছিল।

চুক্তির পর দিন থেকেই কাজে লেগে পড়েন প্রতিবেশী যুবক। সপ্তাহে এক দিন একান্ত সময় কাটাতেন ট্রটে এবং মাউস। এভাবে কেটে গিয়েছে ৬ মাস। কিন্তু বিধাতা বোধ হয় ডমিট্রাস ও ট্রটের কপালে সন্তানসুখ লেখেননি। ৭২ বার প্রচেষ্টায়ও গর্ভধারণ করতে পারেননি ওই তরুণী।

আরও পড়ুন,
* Success: ২৫-বছর বয়সের পর উন্নতি নিশ্চিৎ, মিলিয়ে দেখুন হাতে এই রেখা আছে নাকি?
*আয়ু কত দিন? বলে দেবে হাত ও ললাটের রেখা, জানতে চান?

মাউসের উপর পূর্ণ আস্থা ছিল ডমিট্রাসের। তিনি ধরেই নিয়েছিলেন যে, সন্তানের শরীরে তাঁর রক্ত না বইলেও তিনি শুনতে পাবেন ‘ড্যাডি’ ডাক । কিন্তু ছ’মাস পরেও যখন তাঁর পরিকল্পনা ব্যর্থ হলে, সব রাগ গিয়ে পড়ল ওই প্রতিবেশীর উপর। দায়িত্ব দিয়েও সেই কাজ ঠিকমতো না করতে পারার অভিযোগে সোজা মামলা করে বসলেন প্রতিবেশী ওই যুবকের বিরুদ্ধে।

Note: প্রতিবেদনে উল্লেখিত তথ্য বিভিন্ন নিউজ পোর্টাল / অনলাইনে পাওয়া তথ্যের উপর ভিত্তি করে লেখা। খবরের সত্যতা যাচাই করেনা Sangbad Bhavan। ভিডিও খবর পেতে সাবস্ক্রাইব করুন সংবাদ ভবন YouTube পেজ। ফলো করুন Google News, Instragram, Facebook পেজ।