'
ঘূর্ণিঝড় মিগজাউমের দাপট, অন্ধ্রে মৃত ১৭, আজও ভারী বৃষ্টিতে ভাসবে ৫ রাজ্যঘূর্ণিঝড় মিগজাউমের দাপট, অন্ধ্রে মৃত ১৭, আজও ভারী বৃষ্টিতে ভাসবে ৫ রাজ্য

ঘূর্ণিঝড় মিগজাউমের শক্তি অনেকটা কমেছে। তবে বুধবারেও দেশের কিছু কিছু অংশে দুর্যোগের সম্ভাবনা রয়েছে। আবহাওয়া দফতর সূত্রে জানা গিয়েছে, মঙ্গলবার স্থলভাগে আছড়ে পড়ার পর শক্তি খুইয়েছে ঘূর্ণিঝড় মিগজাউম। এখন ঘূর্ণিঝড়টি গভীর নিম্নচাপে পরিণত হয়ে মধ্য উপকূলবর্তী অন্ধ্রপ্রদেশে অবস্থান করছে। আগামী ৬ ঘণ্টায় মিগজাউমের শক্তি আরও কমার পর এটি নিম্নচাপে পরিণত হতে পারে।

হাওয়া অফিস তরফে আরও জানানো হয়েছে, ঘূর্ণিঝড় থেকে গভীর নিম্নচাপে পরিণত হওয়া মিগজাউম অন্ধ্রের বাপাতলা ১০০ কিমি উত্তর ও উত্তর-পশ্চিমে এবং খাম্মামের ৫০ কিমি দক্ষিণ-পূর্বে অবস্থান করছে। দক্ষিণ ভারতের বেশ বড় অংশকে ভাসিয়েছে ঘূর্ণিঝড় মিগজাউম। গভীর নিম্নচাপে পরিণত হওয়ার পর এটি উত্তরের দিকে এগোতে থাকবে বলে জানা গিয়েছে। আর নিম্নচাপের জেরে বুধবার উত্তর উপকূলবর্তী অন্ধ্রপ্রদেশে ভারী বৃষ্টির সম্ভাবনা রয়েছে।

আরও পড়ুন,
*শরীরে রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়িয়ে তুলতে চান? শুধুমাত্র ওষুধের উপর ভরসা না করে পাতে রাখুন এই পাঁচ শাক
*ভুঁড়ির সাইজ কিছুতেই কমছে না? মেদ ঝরানোর জাদুটোনা আদা! শুধু খেতে হবে এই বিশেষ নিয়ম

আজ বুধবার ভারী বৃষ্টি হওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে দক্ষিণ ছত্তীসগঢ়, দক্ষিণ উপকূলবর্তী, দক্ষিণ ওড়িশাতেও এবং মহারাষ্ট্রের বিদর্ভ এলাকায়। গত কাল মঙ্গলবার ওড়িশা প্রশাসনের তরফে দক্ষিণের জেলাগুলিকে ভারী বৃষ্টির বিষয়ে সতর্ক করা হয়েছে। গত কাল মঙ্গলবার দুপুরেই অন্ধ্রপ্রদেশ উপকূলের বাপাতলার কাছে স্থলভাগে আছড়ে পড়ে ঘূর্ণিঝড় মিগজাউম।

এর পর শেষ ছ’ঘণ্টায় সমুদ্রের উপর গতিবেগ ছিল ১০ কিলোমিটার প্রতি ঘণ্টা। কিন্তু স্থলভাগে আছড়ে পড়ার সময় ঘূর্ণিঝড় মিগজাউমের গতি ছিল ঘণ্টায় ৯০ থেকে ১০০ কিলোমিটার। মিগজাউমের ভয়ঙ্কর প্রভাব অন্ধ্রপ্রদেশের তুলনায় তামিলনাড়ুতেই বেশি পড়েছে। এই ঝড়ের কবলে পরে ইতিমধ্যে চেন্নাইয়ে মারা গিয়েছেন সতেরো জন। সোমবারের পর বৃষ্টি খানিক কমলেও জলমগ্ন রয়েছে শহরের বহু এলাকা।

ঘূর্ণিঝড় মিগজাউমের পরোক্ষ প্রভাব পড়েছে এই রাজ্যেও। গত কাল মঙ্গলবার শহরের আকাশ মেঘাচ্ছন্ন ছিল। দক্ষিণবঙ্গের বেশ কিছু জেলায় হালকা পাতলা বৃষ্টিপাত হয়েছে। আজ বুধ এবং অগামী কাল বৃহস্পতিবার বৃষ্টি বাড়তে পারে বলে আগেও পূর্বাভাস দেওয়া হাওয়া অফিসের তরফে।

শুধু পশ্চিম বর্ধমানে বৃষ্টির তেমন সম্ভাবনা নেই। বুধবার সব জেলাগুলিতেই হালকা থেকে মাঝারি বৃষ্টিপাত হওয়ার সম্ভাবনা জারি করেছে হাওয়া অফিস। তবে জেলার সব জায়গায়ই যে বৃষ্টি হবে তেমনটা নয়। আর অগামী কাল বৃহস্পতিবারও দক্ষিণের একাধিক জেলায় হালকা পাতলা বৃষ্টিপাত হবে বলেই আপাতত খবর আলিপুর হাওয়া অফিস তরফে।

আরও পড়ুন,
*ঘূর্ণিঝড়ের প্রভাব দেখাদেবে বাংলার আবহাওয়াতেও, এই সব জেলায় বৃষ্টি ঝরবে
*মর্মান্তিক, গঙ্গায় নেমে তলিয়ে গেল দুই ছাত্র

Note: প্রতিবেদনে উল্লেখিত তথ্য বিভিন্ন নিউজ পোর্টাল / অনলাইনে পাওয়া তথ্যের উপর ভিত্তি করে লেখা। খবরের সত্যতা যাচাই করেনা Sangbad Bhavan। ভিডিও খবর পেতে সাবস্ক্রাইব করুন সংবাদ ভবন YouTube পেজ। ফলো করুন Google News, Instragram, Facebook পেজ।