বিদেশের মাটিতে মৃত্যু ভারতীয় ছাত্রের, মৃত্যুর কারণ অধরা | SANGBAD BHAVAN  

বিদেশের মাটিতে মৃত্যু ভারতীয় ছাত্রের, মৃত্যুর কারণ অধরা

ফের বিদেশবিভুঁইয়ে এক ভারতীয় ছাত্রের মৃত্যুর খবর প্রকাশ্যে এলো। জানা যাচ্ছে, প্রায় ২৪ ঘন্টা নিখোঁজ থাকার পর ওই ছাত্রের সন্ধান পাওয়া যায়। ওই ছাত্রের নাম নীল আচার্য্য। তার মৃত্যু কি কারণে হয়েছে তা নিয়ে রয়ে গিয়েছে ধোঁয়াশা। তবে সংবাদমাধ্যমের তরফে জানা গিয়েছে, নীল আচার্য্য পারডু বিশ্ববিদ্যালয়ে স্নাতকোত্তর ডিগ্রির জন্য পড়াশোনা করছিলেন।

তার নিখোঁজ হওয়ার ঘটনাটি প্রথম সামনে আনেন তার মা গৌরী আচার্য্য। রবিবার নীলকে শেষ দেখা যায়। এরপর তার সঙ্গে আর কোনোরকম যোগাযোগ করা সম্ভব হয়নি৷ এরপর তার মা ছেলের নিখোঁজ হয়ে যাওয়া নিয়ে সোশ্যাল মিডিয়ায় একটি পোস্ট করেন। এভাবেই নীলের নিখোঁজ হয়ে যাওয়ার বিষয়টি তিনি বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ ও শিকাগোর ভারতীয় কনস্যুলেটের নজরে আনেন তিনি।

আরও পড়ুন,
*পরম নয় পিয়ার গালে চুম্বন এঁকে দিলেন অন্য কেউ, নেটদুনিয়ায় ভাইরাল ছবি
*অপেক্ষার অবসান! কবে মুক্তি পাচ্ছে ‘পুষ্পা ২’? জানালেন আল্লু অর্জুন

সেই পোস্টে গৌরী দেবী জানান, নীল গত ২৮শে জানুয়ারি থেকে নিখোঁজ। তাকে শেষবার তার ক্যাবচালক বিশ্ববিদ্যালয়ের গেটের সামনে নামিয়ে দিয়ে যায়। এরপর তার আর কোনোরকম খোঁজ পাওয়া যায়নি। ওই ছাত্রের মায়ের পোস্ট দেখার পর বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ আশ্বাস দেয় তাদের ছাত্রকে খুঁজে বের করার জন্য বিশ্ববিদ্যালয়ের তরফে সবরকম চেষ্টা করা হবে।

যদিও সোমবার নীলের বিষয়ে সদর্থক কোনো খবর দিতে পারেনি বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ। তারা জানিয়েছে, নীলের মৃত্যু হয়েছে৷ এটি নিশ্চিত করা হয়েছে বিশ্ববিদ্যালয়ের কম্পিউটার সায়েন্স বিভাগের পক্ষ থেকে।

এই প্রসঙ্গে বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রধান ক্রস ক্লিফটন জানান, নীল একজন মেধাবী ছাত্র ছিলেন। সকলের সঙ্গে তিনি ভালো ব্যবহার করতেন ও মিষ্টভাষী ছিলেন। তার মৃত্যু আমাদের কাছে বড় ঢাক্কা। তবে তার মৃত্যুর কারণ নিয়ে ধোঁয়াশা তৈরি হয়েছে।

আরও পড়ুন,
*‘ভিখারিমুক্ত’ ভারত গড়বে কেন্দ্র, ৩০টি শহরের ভিক্ষুকদের মূলস্রোতে ফেরানোই লক্ষ্য ২০২৬-এর মধ্যে, পরে জুড়বে আরও শহর
*অন্দরে ৭ সুইমিং পুল, ৪০ রেস্তরাঁ! যাত্রা শুরু ‘আইকন অব দ্য সিজ’ জাহাজের

Note: প্রতিবেদনে উল্লেখিত তথ্য বিভিন্ন নিউজ পোর্টাল / অনলাইনে পাওয়া তথ্যের উপর ভিত্তি করে লেখা। খবরের সত্যতা যাচাই করেনা Sangbad Bhavan। ভিডিও খবর পেতে সাবস্ক্রাইব করুন সংবাদ ভবন YouTube পেজ। ফলো করুন Google News, Instragram, Facebook পেজ।