'

মধুচন্দ্রিমা হবে পুজোর সময়! কাঞ্চনের বুকেই শান্তি লাল সিঁথি আর টিপে টুকটুকে বউ শ্রীময়ীর!

By BB Mar21,2024
Honeymoon will be the time of worship! Kanchan's chest is filled with peace and the wife Sreemoyee's wife!মধুচন্দ্রিমা হবে পুজোর সময়! কাঞ্চনের বুকেই শান্তি লাল সিঁথি আর টিপে টুকটুকে বউ শ্রীময়ীর!

২রা মার্চ বিবাহবন্ধনে আবদ্ধ হয়েছেন অভিনেতা কাঞ্চন মল্লিক এবং অভিনেত্রী শ্রীময়ী চট্টরাজ। তাদের বিয়ে নিয়ে কম জলঘোলা হয়নি সোশ্যাল মিডিয়ায়। তবে যেই যা বলুক না কেন তাদের জীবনে কী ঘটে চলেছে তা নিয়ে কৌতূহলের শেষ নেই কিন্তু দর্শকদের।

বিয়ের পর থেকেই একাধিক ছবি ও ভিডিও পোস্ট করেছেন অভিনেত্রী। এছাড়া ইনস্টাগ্রামে লাইভও এসেছেন স্বামীকে নিয়ে। আর সম্প্রতি এবার একটি ছবি পোস্ট করেছেন দু’জনের। যেখানে দেখা যাচ্ছে নীল শাড়িতে সেজে উঠেছেন অভিনেত্রী। খোলা চুল, হালকা সোনার গয়না এবং সিঁথি রাঙানো সিঁদুর।

ভীষণই সুন্দরী লাগছিল তাকে দেখতে। অন্যদিকে কাঞ্চনের পরনে ছিল নীল রঙের জিন্স এবং হলুদ রঙের শার্ট। ছবিটি পোস্ট করে একটি হৃদয় ও এভিল আইয়ের ইমোজি দিয়েছেন তিনি। অর্থাৎ নজরের হাত থেকে বাঁচতে এই ইমোজি দিয়েছেন অভিনেত্রী। তাদের এই ছবি পোস্ট করার পর একাংশ যেমন তাদের প্রশংসা করেছেন আবার কটাক্ষ করতেও ছাড়েননি কেউ কেউ।

যদিও সেসব বিষয়কে তোয়াক্কা করেন না এই জুটি বরং নিজেদের ছন্দে জীবনকে সাজিয়ে নিয়েছেন। অন্যদিকে সামনে যেহেতু লোকসভা নির্বাচন রয়েছে এছাড়া অভিনেত্রীরও হাতে রয়েছে বেশ কিছু কাজ, তাই আপাতত মধুচন্দ্রিমায় যাওয়া হচ্ছে না তাদের। তবে পরিকল্পনা রয়েছে পুজোর সময় সেটি সারতে যাবেন।

উল্লেখযোগ্য, তাদের বিয়ের বিষয়ে কাঞ্চন জানিয়েছিলেন পিঙ্কি এবং তার বিচ্ছেদের পর থেকেই তৃতীয় ব্যক্তি হিসেবে বারবার নাম উঠেছে শ্রীময়ীর। আর সেই অবমাননা, অবহেলাকে মিথ্যে প্রমাণ করতেই নাকি তিনি বিয়ে করেছেন শ্রীময়ীকে। বর্তমানে তার জীবনে শ্রীময়ী নাকি শান্তির আশ্রয়।

Disclaimer: Sangbad Bhavan -এ উল্লেখিত তথ্য বিভিন্ন নিউজ পোর্টাল / অনলাইনে পাওয়া তথ্যের উপর ভিত্তি করে লেখা, শুধুমাত্র তথ্য গ্রহণের জন্য। কোন বিশেষ সিদ্ধান্ত পৌঁছানোর পূর্বে আপনার শুভ চিন্তকের সঙ্গে পরামর্শ করে নেবেন। Note: ভিডিও খবর পেতে সাবস্ক্রাইব করুন সংবাদ ভবন YouTube পেজ। ফলো করুন Google News, Instragram, Facebook পেজ।

By BB

Related Post

5 Best Night Creams ৪ মাসের শিশু ২৪০ কোটির মালিক