'
বাংলার অযোধ্যায় সীতা-রাম মন্দির গড়ার সংকল্পবাংলার অযোধ্যায় সীতা-রাম মন্দির গড়ার সংকল্প

২২শে জানুয়ারি সোমবার অযোধ্যায় প্রাণ প্রতিষ্ঠা হয়েছে ভগবান শ্রী রামলালার। সকাল থেকেই চলছিল তার কর্মকাণ্ড। প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির উপস্থিতিতেই সম্পন্ন হয়েছে গোটা কর্মকাণ্ড। এই একই দিনে বাংলার মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় কলকাতায় সংহতি মিছিলের ডাক দিয়েছেন। আজ রামলালার প্রাণ প্রতিষ্ঠা দিবসে বাংলার আরেক জায়গা পুরুলিয়ার অযোধ্যাতে আয়োজন করা হয়েছে। পুরুলিয়ার অযোধ্যা পাহাড়ে সীতাকুণ্ডের পাশে সীতারাম মন্দিরের সংকল্পে পুজোর আয়োজন করেছে অখিল ভারত হিন্দু মহাসভা।

জানা যাচ্ছে, এই অনুষ্ঠান সম্পন্ন হবে হিন্দু মহাসভার রাজ্য সভাপতি চন্দ্রচূড় গোস্বামীর নেতৃত্বে। এছাড়া তারা জানিয়েছেন এখানে শুধু সীতারাম মন্দির নয়, এই জায়গাটিকে হেরিটেজ সাইট ঘোষণা করে উন্নত মানের পর্যটন কেন্দ্র গড়ে তোলার পক্ষেও জোর দিয়েছেন তারা। তারা জানিয়েছেন, আগামী দিনে এই সিদ্ধান্তকে কাজে পরিণত করার জন্য হিন্দু মহাসভা পুরুলিয়ার অযোধ্যা পাহাড় অঞ্চলের সাংসদ, বিধায়ক, রাজ্যের পর্যটন মন্ত্রী এবং অবশ্যই মাননীয়া মুখ্যমন্ত্রীর সঙ্গে আলোচনা করবেন। তবে এই স্থানের কি গুরুত্ব রয়েছে!

আরও পড়ুন,
*আরও এক রামলালা থাকবেন রাম মন্দিরের গর্ভগৃহে, জানে নিন সেই মূর্তির বিশেষত্ব
*মুকেশ অম্বানির রামভক্তিত.. অ্যান্টিলিয়া’য় অকাল দীপাবলি দেখে মুগ্ধ নেটপাড়া

এই প্রশ্নের উত্তরে অখিলভারত হিন্দুমহাসভার রাজ্য সভাপতি চন্দ্রচূড় গোস্বামী বলেছেন, অযোধ্যা যেমন শ্রী রামলালার জন্মস্থান তেমনি বাংলার অযোধ্যা পাহাড়ও ভগবান রামের একটি কর্মভূমি হিসেবে গুরুত্বপূর্ণ। এই রাস্তা ধরেই ভগবান শ্রী রাম ও তার পত্নী সীতা এবং ভাই লক্ষ্মণকে সঙ্গে নিয়ে কিস্কিন্ধ্যা গিয়েছিলেন।

সেখানে অরণ্যে বেশ কিছুদিন বসবাস করেন তারা। এছাড়া তৃষ্ণার্ত সীতা দেবীকে জল খাওয়ানোর জন্য ভগবান শ্রী রামচন্দ্র এই অঞ্চলে তীর নিক্ষেপ করে জলাশয় তৈরি করেন। এখন সেই জলাশয় সীতাকুণ্ড নামে পরিচিত। তার মতে ভগবান শ্রী রামচন্দ্র সকলের ভগবান। তিনি কোনো বিশেষ রাজনৈতিক দলের ভগবান নন।

তিনি সনাতন ধর্মের প্রতিটি মানুষের ভগবান। সনাতনী সমস্ত মানুষের আবেগের নাম হল রামচন্দ্র। ভগবান রামচন্দ্র রাবণকে যুদ্ধে হারানোর পর বাংলা মানুষের দেবী উমার আরাধনা করেছিলেন। আর তাই শরৎকালে সারা বাংলা জুড়ে দুর্গা পুজো অনুষ্ঠিত হয়। তাই ভগবান রামচন্দ্রকে শুধুমাত্র হিন্দি বলয়ে আটকে রাখলে হবে না৷

আরও পড়ুন,
*প্রাণপ্রতিষ্ঠার আগে রামলালা মূর্তি কারা ভাইরাল করল? মন্দিরের প্রধান পুরোহিত তদন্ত চান
*Ram Mondir Ajodha: সেজে উঠেছে অযোধ্যা ধাম, উচ্ছেদের ধার না ধারলেও রাম-আলোর আড়ালে ‘মা’ কৌশল্যাদের চোখের জলও

Note: প্রতিবেদনে উল্লেখিত তথ্য বিভিন্ন নিউজ পোর্টাল / অনলাইনে পাওয়া তথ্যের উপর ভিত্তি করে লেখা। খবরের সত্যতা যাচাই করেনা Sangbad Bhavan। ভিডিও খবর পেতে সাবস্ক্রাইব করুন সংবাদ ভবন YouTube পেজ। ফলো করুন Google News, Instragram, Facebook পেজ।