'

জাহাজের ধাক্কায় হুড়মুড়িয়ে ভেঙে পড়ল সেতু, সবই নদীতে! প্রকাশ্যে সেই ভিডিও

By BB Mar28,2024
The bridge collapsed due to the impact of the shipজাহাজের ধাক্কায় হুড়মুড়িয়ে ভেঙে পড়ল সেতু, সবই নদীতে! প্রকাশ্যে সেই ভিডিও

জাহাজের ধাক্কায় ভেঙে পড়ল সেতু। আর সেই সেতুতে থাকা গাড়িও পড়ল নদীতে। সেতুতে চলমান গাড়ি ও মানুষেরা সেতু ভেঙে পড়ায় নদীতে ভেসে গিয়েছেন। এমনই এক ঘটনা ঘটেছে আমেরিকার মেরিল্যান্ড প্রদেশের বাল্টিমোর শহরে। ইতিমধ্যে নদীতে উদ্ধারকাজ শুরু হয়েছে। সংবাদমাধ্যম সূত্রে জানা গিয়েছে, মঙ্গলবার রাত ১টা ৩০ মিনিটে বাল্টিমোর শহরের বিখ্যাত ‘ফ্রান্সিস স্কট কি’ সেতু ভেঙে পড়ে।

সেতুটি ভেঙে পড়েছে প্যাটাপসকো নদীতে। সংবাদমাধ্যম সূত্রে জানা গিয়েছে, একটি মালবাহী জাহাজের ঢাক্কায় সেতুটির একটি স্তম্ভে আঘাত লাগে। এরপরই সেতুটির একটি অংশ হুড়মুড়িয়ে ভেঙে পড়ে। সামাজিক মাধ্যমে ইতিমধ্যে সেতু ভেঙে পড়ার সেই ভিডিও ভাইরাল হয়ে গিয়েছে।

সেই ভিডিওতে স্পষ্ট দেখা গিয়েছে কীভাবে সেতুটি ভেঙে পড়েছে তৎক্ষনাৎ। আমেরিকার সমস্ত সংবাদমাধ্যম সূত্রে জানানো হয়েছে, মঙ্গলবার রাতে বাল্টিমোর বন্দর থেকে একটি মালবাহী জাহাজ হঠাৎই এসে ঢাক্কা মারে ‘ফ্রান্সিস স্কট কি’ নামক সেতুটিতে। এরফলে সেতুর একটি স্তম্ভ ফাটল ধরে এবং ধীরে ধীরে সেতুটির একটি অংশ ভেঙে পড়ে প্যাটাপসকো নদীতে।

ঘটনাস্থলে তৎক্ষনাৎ হাজির হয় পুলিশ, উদ্ধারকারী দল। রাতেই উদ্ধারকাজ শুরু হয়। ইতিমধ্যে কয়েকজনে উদ্ধার করা হয়েছে বলে জানা গিয়েছে। এছাড়া আরও অনেকে আটকে পড়েছেন নদীতে। এখনও পর্যন্ত কোনো মৃত্যুর খবর মেলেনি৷ ঘটনার পর সেতুতে যান চলাচল বন্ধ করা হয়।

এদিকে যে জাহাজটি ঢাক্কা মেরেছিল সেটিকে সরানোর কাজও চলছে। ‘ফ্রান্সিস স্কট কি’ সেতুটি ১.৬ মাইল লম্বা। এই সেতুর মাধ্যমে বাল্টিমোর বন্দরের বাইরে ক্রসিং এবং বাল্টিমোর বেল্টওয়ের মধ্যে সহজেই যোগাযোগ স্থাপন করা যায়। সেতুটি ভেঙে পড়ায় স্বভাবতই অসুবিধায় সেখানকার মানুষ।

Disclaimer: Sangbad Bhavan -এ উল্লেখিত তথ্য বিভিন্ন নিউজ পোর্টাল / অনলাইনে পাওয়া তথ্যের উপর ভিত্তি করে লেখা, শুধুমাত্র তথ্য গ্রহণের জন্য। কোন বিশেষ সিদ্ধান্ত পৌঁছানোর পূর্বে আপনার শুভ চিন্তকের সঙ্গে পরামর্শ করে নেবেন। Note: ভিডিও খবর পেতে সাবস্ক্রাইব করুন সংবাদ ভবন YouTube পেজ। ফলো করুন Google News, Instragram, Facebook পেজ।

By BB

Related Post

5 Best Night Creams ৪ মাসের শিশু ২৪০ কোটির মালিক