Ram Mandir: জনসাধারণের জন্য খুলে গেল রামলালার দরজা, কাকভোরে রামমন্দিরে চরম বিশৃঙ্খলা | SANGBAD BHAVAN  

Ram Mandir: জনসাধারণের জন্য খুলে গেল রামলালার দরজা, কাকভোরে রামমন্দিরে চরম বিশৃঙ্খলা

গত ২২শে জানুয়ারি দীর্ঘ কয়েক শতক পর অযোধ্যায় উদ্বোধন হল রাম মন্দিরের। এই রাম মন্দির নিয়ে তোড়জোড় অনেকদিন ধরেই চলছে। একাধিক রীতিনীতি ইত্যাদি মেনে অবশেষে গত ২২শে জানুয়ারি সোমবার রাম মন্দিরে রাম লালার প্রাণ প্রতিষ্ঠা করলেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। মন্দিরে রাম লালার প্রাণ প্রতিষ্ঠার সময় সেখানে হাজির ছিলেন একাধিক ভিআইপি ব্যক্তিবর্গ। খেলার জগত, বিনোদন জগত, রাজনৈতিক মহলের অনেকেই হাজির ছিলেন। দীর্ঘ কয়েক বছর তাবুতে পূজিত হওয়ার পর অবশেষে ভগবান রাম মন্দিরে স্থান পেলেন।

এতকিছুর মাঝে যদিও সোমবার সাধারণ মানুষের জন্য মন্দির প্রবেশ বন্ধ ছিল। তবে মঙ্গলবার ভোর হতে না হতেই সাধারণ মানুষের জন্য খুলে যায় মন্দিরের দরজা। যদিও এর আগে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি সাধারণ মানুষকে ভিড় জমাতে বারণ করেন। আর তাই আরও উন্মাদনা বেড়ে যায় সাধারণ মানুষের মধ্যে। মঙ্গলবার একেবারে কাকভোরে সাধারণ মানুষ মন্দির প্রবেশ পথে হাজির ছিলেন।

আরও পড়ুন,
*Bidipta Chakraborty: ‘মনে রাখব…’ রামমন্দিরের উদ্বোধনের পর দেশ জুড়ে অকাল দীপাবলি, তবুও এমন ক্থা কেন লিখলেন বিদীপ্তা?
*India’s cheetah man: দেশের পাশাপাশি আন্তর্জাতিক স্তরেও পালন করেছেন বিশেষ দায়িত্ব, ‘ভারতের চিতা ম্যান’ এই প্রিন্সকে জানেন

মন্দিরের দরজা খোলার সঙ্গে সঙ্গে হুড়মুড়িয়ে ঢুকতে আরম্ভ করেন শয়ে শয়ে রামভক্ত। মঙ্গলবার চরম বিশৃঙ্খলার সৃষ্টি হয় মন্দির প্রাঙ্গণে। আর এই মূহুর্তের একটি ভিডিও সংবাদমাধ্যমের তরফে সোশ্যাল মিডিয়ায় পোস্ট করা হয়। যেখানে দেখা গিয়েছে ধাক্কাধাক্কিতে টাল সামলাতে না পেরে অনেকেই মাটিতে পড়ে যান। চরম বিশৃঙ্খলার সৃষ্টি হয়। এরপরই কয়েকজন গেরুয়া পতাকার লাঠি নিয়ে চড়াও হয়। যদিও তাতে কাউকে আঘাত করা হয়নি।

১৫২৮ সালে অযোধ্যায় ওই স্থানে তৈরি করা হয় বাবরি মসজিদ। বলা হয়, ওই স্থানে একটি মন্দির ছিল আর সেটি ভেঙেই তৈরি করা হয় মসজিদ। এরপর ১৯৯২ সালে মসজিদ ধ্বংস করা হয়। এরপর অবশেষে ২০২৪ সালের ২২শে জানুয়ারি প্রাণ প্রতিষ্ঠা হল রাম লালার। মোট ৭০ একর জমি জুড়ে তৈরি হয়েছে রাম মন্দির। মন্দিরে প্রবেশ করার জন্য প্রথমে বাইরের প্রাচীর অতিক্রম করতে হবে। এই প্রাচীরের ভেতরেই রয়েছে মন্দির।

৭৯৫ মিটারের ‘পারকোটা’-র ভিতরে পাঁচটি মন্দির এবং গর্ভগৃহ রয়েছে। সেখানেই রাম লালার মূর্তি রয়েছে। গর্ভগৃহ থেকে মন্দিরের সিঁড়ি পর্যন্ত ৪০০ ফুট লম্বা। এরপর ৩২টি সিঁড়ি পেরোলেই রাম লালার দর্শন পাওয়া যাবে। মন্দিরের পূর্ব দিক দিয়ে উঠতে হবে এবং দক্ষিণ দিক দিয়ে নামতে হবে।

আরও পড়ুন,
*ঋতুস্রাবের যন্ত্রণা কাতর করে দেয়? এই ৩ খাবার খেলেই শারীরিক অস্বস্তি থেকে চটজলদি রেহাই পাবেন
*Ram Mondir: আগামী কাল রামমন্দিরের দরজা খুলবে কখন? রইল আরতির সময় সহ সম্পূর্ণ অনুষ্ঠানসূচি

Note: প্রতিবেদনে উল্লেখিত তথ্য বিভিন্ন নিউজ পোর্টাল / অনলাইনে পাওয়া তথ্যের উপর ভিত্তি করে লেখা। খবরের সত্যতা যাচাই করেনা Sangbad Bhavan। ভিডিও খবর পেতে সাবস্ক্রাইব করুন সংবাদ ভবন YouTube পেজ। ফলো করুন Google News, Instragram, Facebook পেজ।