'
মধুচন্দ্রিমাতে কোথায় গেলেন ইরা খান ও তার দীর্ঘদিনের প্রেমিক নূপুর শিখমধুচন্দ্রিমাতে কোথায় গেলেন ইরা খান ও তার দীর্ঘদিনের প্রেমিক নূপুর শিখ

কিছুদিন আগে ধুমধাম করে বিয়ে সারেন বলিউড অভিনেতা আমির খানের কন্যা ইরা খান ও তার দীর্ঘদিনের প্রেমিক নূপুর শিখরে। বিয়ের পর প্রতিটি দম্পতি সবচেয়ে পছন্দের জায়গা বেছে নেন হানিমুন হিসেবে। সেখানে তারা কিছুদিন নিভৃতে দু’জনে কাটিয়ে আসেন। তেমনই ইরা ও তার স্বামী নূপুরও হানিমুনে গিয়েছেন। তারা তাদের হানিমুন ডেস্টিনেশন হিসেবে বেছে নিয়েছেন ইন্দোনেশিয়ার সবচেয়ে জনপ্রিয় টুরিস্ট স্পট বালি।

বালি গিয়ে তারা দু’জনে চুটিয়ে আনন্দ করেছেন। একাধিক জায়গায় ঘুরে বেরিয়েছেন ও জমিয়ে করেছেন খাওয়াদাওয়া। আর তারই বেশ কিছু ছবি নিজের সোশ্যাল হ্যান্ডেলে শেয়ার করলেন নবদম্পতি। সেই ছবিও মুহূর্তে ভাইরাল হয়েছে।

আরও পড়ুন,
*দুই থেকে তিন হলেন, সুখবর জানালেন দুর্নিবার নিজেই
*দিন-কয়েক পরেই ‘ভ্যালেন্টাইন্স ডে’, আপনাকে কী কেউ গোপনে ভালোবাসে? বুঝে নিন এই ভাবে

ইরা ও নূপুরের কাপল গোলস্ ছবি মনে ধরেছে নেট দুনিয়ার মানুষের। তবে তারা দীর্ঘদিন বালিতে কাটিয়ে ফের ফিরে এসেছেন দেশে। বালির একাধিক ছবিতে দেখা গিয়েছে সৈকত ভ্রমণ, রোম্যান্টিক পুল ডেট সহ একাধিক জায়গায় হেডস্ট্যান্ড করেছেন নূপুর।

ছবিগুলি পোস্ট করে ইরা লিখেছেন, হানিমুন কেমন চলছে নূপুর। তোমাকে ভালোবাসি। এর পাশাপাশি তিনি লিখেছেন, এক মাস, চার বছর, জলের নীচে, ভোর ৩টে, উল্টো হয়ে, স্কোয়াট, আন্টি ক্লাইমেটিক, হাই ক্লাইমেটিক কোনো ব্যাপার না। যতক্ষণ তোমার সঙ্গে আছি।

তাদের পোস্ট করা ছবিতে দেখা গিয়েছে, ইরা ও নূপুর দু’জনেই তাদের শরীরে ট্যাটু করিয়েছেন। ইরা তার কলারবোনে করিয়েছেন কচ্ছপের উলকি এবং নূপুর তার বাইসেপে একটি কচ্ছপের ট্যাটু করিয়েছেন। সোশ্যাল মিডিয়ায় বেশ সক্রিয়া ইরা। এবার তার হানিমুনের একাধিক ছবি সোশ্যাল মিডিয়ায় শেয়ার করলেন যা মূহুর্তেই ভাইরাল হয়েছে।

আরও পড়ুন,
*Dev: রাজনীতিকে বিদায়? লোকসভা নির্বাচনের ঠিক আগেই তিনটি থেকে ইস্তফা দেবের
*Poonam Pandey: মাত্র ৩২ বছর বয়সে মৃত্যু! নগ্নতা, বিতর্কের ঝড়, ‘কলঙ্ক’ময় জীবন পুনম পাণ্ডের

Note: প্রতিবেদনে উল্লেখিত তথ্য বিভিন্ন নিউজ পোর্টাল / অনলাইনে পাওয়া তথ্যের উপর ভিত্তি করে লেখা। খবরের সত্যতা যাচাই করেনা Sangbad Bhavan। ভিডিও খবর পেতে সাবস্ক্রাইব করুন সংবাদ ভবন YouTube পেজ। ফলো করুন Google News, Instragram, Facebook পেজ।