লাস্যময়ী অভিনেত্রী নূপুর অলঙ্কার এখন সন্ন্যাসী; কেন এমন সিদ্ধান্ত নিলেন? | SANGBAD BHAVAN  

লাস্যময়ী অভিনেত্রী নূপুর অলঙ্কার এখন সন্ন্যাসী; কেন এমন সিদ্ধান্ত নিলেন?

আধ্যাত্মিকতাকে বেছে নিতেই বিনোদন জগত থেকে সরে এসেছেন নূপুর অলঙ্কার। জনপ্রিয় অভিনেত্রী নূপুর অলঙ্কার এখন সন্ন্যাসী; কেন এমন সিদ্ধান্ত নিলেন তিনি?

একসময় বিনোদন জগতের পরিচিত মুখ হলেও বর্তমানে সন্ন্যাসী হয়েছেন তিনি। আধ্যাত্মিকতাকে বেছে নিতেই বিনোদন জগত থেকে সরে এসেছেন নূপুর অলঙ্কার। মোট ১৫৭টি ধারাবাহিকে অভিনয় করেছেন তিনি। এ-থেকে স্পষ্ট হয় তিনি ছোটো পর্দার জনপ্রিয় মুখ ছিলেন।

তবে বর্তমানে সন্ন্যাসী হওয়ায় সেই জগত থেকে নিজেকে সরিয়ে নিয়েছেন। তাকে এ বিষয়ে প্রশ্ন করা হলে তিনি জানান, আধ্যাত্মিকতার গভীরে প্রবেশ করতে হলে চাকচিক্যের দুনিয়া থেকে দূরে সরে যেতে হয়।

আরও পড়ুন,
*প্রতারণার জ্বালে উত্তরপ্রদেশের ডিএসপি শ্রেষ্ঠা ঠাকুর! লেডি সিংহমের বিবাহবিচ্ছেদ
*১৯৯৭ সালে বিয়ে করেন দীপঙ্কর-দোলন! প্রথম স্ত্রীকে ডিভির্স না দিয়েই গোপনে জগন্নাথ মন্দিরের সিঁদুর দান

১৫৭টি ধারাবাহিকে অভিনয় করা নূপুর এখন মন থেকে সন্ন্যাসী। বর্তমানে তিনি গেরুয়া পোশাক পরে সারাদিন ঈশ্বরের আরাধনা করেন। একসময় তিনি যে বিনোদন জগতের জনপ্রিয় মুখ ছিলেন তা বোঝার উপায় নেই। কিন্তু একসময় জনপ্রিয় ও লাস্যময়ী অভিনেত্রী হঠাৎ সন্ন্যাসী হলেন কেনো? এই প্রশ্নের উত্তরও নূপুর দিয়েছেন।

নূপুর জানিয়েছেন, আধ্যাত্মিকতার দুনিয়ায় চাকচিক্য থাকে না। তাই সেই জগত থেকে দূরে সরতে হয় ঈশ্বরের আরাধনার জন্য। ২০০২ সালে নূপুর অলঙ্কার বিবাহবন্ধনে আবদ্ধ হন। বিবাহিত জীবনে বেশ সুখী ছিলেন তিনি। জানা যাচ্ছে, স্বামী ও শাশুড়ীর সঙ্গে পরামর্শ করেই এই জীবন বেছে নিয়েছেন নূপুর। তবে স্বামীর সঙ্গে ছাড়াছাড়ি হলেও আইনীভাবে তারা এখনও স্বামী ও স্ত্রী।

১৯৭২ সালের ২৫শে নভেম্বর জয়পুরে জন্মগ্রহণ করেন নূপুর। সেখানে পড়াশোনা শেষ করার পর গোটা পরিবার মুম্বাই চলে আসে। কেরিয়ারের শুরুতে মডেলিং করতেন নূপুর। এরপর ধীরে ধীরে ছোটো পর্দায় অভিনয় করতে শুরু করেন তিনি৷

আরও পড়ুন,
*মিঠুন চক্রবর্তীর অবস্থা অনেকটাই স্থিতিশীল, কথাবার্তা বলছেন খাবার খাচ্ছেন
*উত্তরপ্রদেশে ভয়ংকর দুর্ঘটনা, বাস-গাড়ির মুখোমুখি সংঘর্ষে জীবন্ত দগ্ধ ৫

Note: প্রতিবেদনে উল্লেখিত তথ্য বিভিন্ন নিউজ পোর্টাল / অনলাইনে পাওয়া তথ্যের উপর ভিত্তি করে লেখা। খবরের সত্যতা যাচাই করেনা Sangbad Bhavan। ভিডিও খবর পেতে সাবস্ক্রাইব করুন সংবাদ ভবন YouTube পেজ। ফলো করুন Google News, Instragram, Facebook পেজ।