সাইকেলে চেপে দূরে দূরে গিয়ে ন্যাড়া জমিতে রোজ বসান গাছ, পদ্মশ্রী পেলেন পুরুলিয়ার সেই ‘গাছদাদু’! | SANGBAD BHAVAN  

সাইকেলে চেপে দূরে দূরে গিয়ে ন্যাড়া জমিতে রোজ বসান গাছ, পদ্মশ্রী পেলেন পুরুলিয়ার সেই ‘গাছদাদু’!

সাইকেলে চেপে কয়েক দশক ধরে গাছ লাগিয়ে চলেছেন তিনি। প্রায় ৫০০০ এরও বেশি গাছ লাগিয়ে ফেলেছেন তিনি। এবার তার এই কাজ নজর এড়িয়ে গেলো না কেন্দ্রর। এবার পদ্মশ্রীতে ভূষিত হলেন বাঘমুণ্ডি ব্লকের সিন্দরি গ্রামের সেই ‘গাছদাদু’ দুখু মাঝি। এবারের ৭৫ তম প্রজাতন্ত্র দিবসে কেন্দ্রীয় সরকারের তরফে একটি পদ্ম পুরস্কারের তালিকা প্রকাশ করা হয়। আর সেই তালিকায় নাম রয়েছে দুখু মাঝির। তার বর্তমান বয়স ৭৮ বছর। তার বয়স যখন ১২ বছর তখন থেকে তিনি গাছ লাগানোর কাজ শুরু করেন। এতদিন পর্যন্ত তাকে কেও বাহবা দেয়নি কিংবা তার কাজের প্রশংসা করেনি।

বৃহস্পতিবার কেন্দ্রের তরফে পদ্ম পুরস্কারের যে তালিকা প্রকাশ করা হয়েছে তাতে রয়েছে ওই বৃদ্ধের নাম। কেন্দ্র সরকারের তরফে বলা হয়েছে, “একজন পরিবেশবিদ, যিনি বৃক্ষরোপণ করতে এবং সবুজ ভবিষ্যতের জন্য সচেতনতা বাড়াতে নিজের জীবনের পাঁচটা দশক উৎসর্গ করে দিয়েছেন।” যেখানেই ন্যাড়া জমি দেখেছেন লাগিয়েছেন একটির পর একটি গাছ। বয়স বাড়লেও নিজের ব্রতের প্রতি অবিচল থেকেছেন। প্রতিদিন নিজের সাইকেলে চেপে নতুন নতুন জায়গায় ফাঁকা জমিতে লাগিয়েছেন গাছ।

আরও পড়ুন,
*৪৭ বছর বয়সে চির ঘুমের দেশে পাড়ি দিলেন কিংবদন্তি সঙ্গীত পরিচালক ইলিয়ারাজার কন্যা ভবতারিণী
*Batukeshwar Dutta: ‘ভগৎ সিং’কে নিয়ে ১৮ দিন লুকিয়েছিলেন এই গ্রামে, প্রজাতন্ত্র দিবসে বীরবিপ্লবী বটুকেশ্বর দত্তকে শ্রদ্ধার্ঘ্য

৫০০০ গাছের মধ্যে সবথেকে বেশি রয়েছে আমগাছ, জামগাছ, বটগাছ। ৬৬ বছর বয়সে তিনি যখন গাছের চারা রোপণ করতে শুরু করেন সেইসময় প্রয়োজনীয় কুসুম, কূল বসাতেন। এরপর আরও অনেক গাছের চারা রোপণ করতে শুরু করেন। গাছ লাগানোর পর তা নিজের হাতে পরিচর্যা করেন তিনি।

তাই তাকে ‘গাছদাদু’ বলেও ডাকেন অনেকে। নিজের বয়সের তোয়াক্কা না করে সাইকেল চালিয়ে দূরে দূরে গিয়ে গাছ লাগিয়েছেন তিনি। আগামী প্রজন্ম যাতে সুন্দর পৃথিবীতে বাঁচতে পারে তার জন্য নিঃস্বার্থভাবে নিজের ব্রতের প্রতি অবিচল থেকেছেন দুখু মাঝি।

এবার এই কাজের জন্য তিনি পেলেন পদ্মশ্রী। তিনি বনবিভাগের অসংখ্য গাছের কাছে ভগবানের দূত হয়ে হাজির হয়েছেন। এদিকে বৃহস্পতিবারের আগে সেভাবে নিজের এই নিঃস্বার্থ কাজের জন্য স্বীকৃতি পাননি তিনি৷ আর্থিক অনটনের মধ্যেই চলতে হয়েছে তাকে। তবে তাতেও মনের অদম্য জেদ কমেনি। এবার তার এই কাজকে সম্মান জানালো ভারত সরকার।

আরও পড়ুন,
*বাথরুমে ব্যবহার আর জল পানের জন্য একটিই মগ, ৩০০০ কোটির মালিক সলমান খানের রাত কেটেছে জেলে
*Republic Day: ৭৫তম প্রজাতন্ত্র দিবস, বিশ্বের একমাত্র অশ্বারোহী রেজিমেন্ট, রাডার থেকে মিসাইল, প্রজাতন্ত্র দিবসে সামরিক শক্তি প্রদর্শন ভারতের

Note: প্রতিবেদনে উল্লেখিত তথ্য বিভিন্ন নিউজ পোর্টাল / অনলাইনে পাওয়া তথ্যের উপর ভিত্তি করে লেখা। খবরের সত্যতা যাচাই করেনা Sangbad Bhavan। ভিডিও খবর পেতে সাবস্ক্রাইব করুন সংবাদ ভবন YouTube পেজ। ফলো করুন Google News, Instragram, Facebook পেজ।